Events details

07-April-2020

বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস

আজ ৭ এপ্রিল ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস’। ১৯৪৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে জাতিসংঘ অর্থনীতি ও সমাজ পরিষদ আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের সম্মেলন ডাকার সিদ্ধান্ত নেয়। একই বছরের জুন ও জুলাই মাসে আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সাংগঠনিক আইন গৃহীত হয়, ১৯৪৮ সালের ৭ এপ্রিল এই সংগঠন আইন আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যকর হয়। এইদিন বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস বলে নির্ধারিত হয়।


ভয়াবহ ছোঁয়াচে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে গোটা বিশ্ব যখন হিমশিম খাচ্ছে, প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত ও মারা যাচ্ছে, সংকটাপূর্ণ স্বাস্থ্য পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ডাক্তার, নার্স, টেকনোলজিস্টসহ স্বাস্থ্যকর্মীরা হিমশিম খাচ্ছেন, এমনই এক বৈশ্বিক দুর্যোগময় পরিস্থিতিতে আজ (৭ এপ্রিল) ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস ২০২০’ পালিত হবে। এ বছর দিবসের প্রতিপাদ্য ‘সেবিকা ও ধাত্রীদের সহায়তা করুন’।


প্রতি বছর সংস্থাটি এমন একটি স্বাস্থ্য ইস্যু বেছে নেয়, যা বিশেষ করে সারা পৃথিবীর জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। সেদিন স্থানীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে পালিত হয় এ দিবসটি।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সংস্থার সদস্যভুক্ত দেশগুলোতে প্রতি বছর যথাযথ গুরুত্বের সঙ্গে দিবসটি পালিত হয়। স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদস্যপদ পাওয়ার পর থেকে বাংলাদেশ অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দিবসটি পালন করে আসছে।


প্রতি বছর বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশও যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালনে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিলেও এবার তা হচ্ছে না। এই প্রথম স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালিক আজ বিকেল ৩টায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের সম্মেলনকক্ষ থেকে অনলাইন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসের উদ্বোধন করবেন।


ভিডিও কনফারেন্সে দেশের সকল বিভাগীয় পরিচালক, হাসপাতাল পরিচালক, সিভিল সার্জন ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ কর্মকর্তারা স্ব স্ব কার্যালয় থেকে অংশগ্রহণ করবেন। এ দিবসে মূলত করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে সরকার গৃহীত বিভিন্ন কার্যক্রম জোরদার করার ব্যাপারে আলোচনা হবে।

 

Back to Home